স্মার্ট ফোনের ব্যাটারির আয়ু বাড়ানোর টিপস

battary

জিবুল ইসলাম হৃদয়, টেক ট্রাভেল ডেস্কঃ  খুব জরুরি একটা ফোন আসার কথা, কিন্তু তার আগেই ব্যাটারি শেষ হয়ে গিয়ে ফোন সুইচড অফ হয়ে গেলো৷ স্মার্ট ফোন থাকলে এই এক জামেলা৷ বাড়িতে থাকলে আলাদা কথা, ফের চার্জ দিয়ে নেওয়া যায়৷ কিন্তু বাইরে সব সময় হাতের কাছে চার্জার নাও থাকতে পারে৷ বা থাকলেও ফোন চার্জ করার সুযোগও যে থাকবে তাও নয়৷ এমন একটা পরিস্থিতিতে আমরা প্রায়ই পড়ি৷ ভয়ে ভয়ে থাকি, এই বুঝি স্মার্ট ফোনের চার্জ খতম হয়ে গেলো৷ 

সজিবুল ইসলাম হৃদয়, টেক ট্রাভেল ডেস্কঃ  খুব জরুরি একটা ফোন আসার কথা, কিন্তু তার আগেই ব্যাটারি শেষ হয়ে গিয়ে ফোন সুইচড অফ হয়ে গেলো৷ স্মার্ট ফোন থাকলে এই এক জামেলা৷ বাড়িতে থাকলে আলাদা কথা, ফের চার্জ দিয়ে নেওয়া যায়৷ কিন্তু বাইরে সব সময় হাতের কাছে চার্জার নাও থাকতে পারে৷ বা থাকলেও ফোন চার্জ করার সুযোগও যে থাকবে তাও নয়৷ এমন একটা পরিস্থিতিতে আমরা প্রায়ই পড়ি৷ ভয়ে ভয়ে থাকি, এই বুঝি স্মার্ট ফোনের চার্জ খতম হয়ে গেলো৷ অর্থাৎ ফোন স্মার্ট হলেও ব্যাটারি তত স্মার্ট নয়৷
 তবে কয়েকটা টিপস আছে, যা মেনে চললে ফোনের ব্যাটারি আরও একটু দীর্ঘস্থায়ী হবে৷ প্রথমেই ফোনের ডিসপ্লে ব্রাইটনেস কমিয়ে দিন৷ যদিও বেশিরভাগ স্মার্ট ফোনের অটো ব্রাইটনেস ফিচার আছে, তবে ম্যানুয়ালিও ডিসপ্লে ব্রাইটনেস কমিয়ে দেওয়ার অপশন পাবেন৷ এর ফলে আপনার ফোনে ব্যাটারির আয়ু আর একটু বেশিক্ষণ থাকতে পারবে৷ এই ভাবে ল্যাপটপেরও ডিসপ্লে ব্রাইটনেস কমিয়ে দিতে পারেন৷ আপনার স্মার্টফোনে নিশ্চয় নানা ধরনের ওয়ালপেপার ব্যবহার করুন৷ ফোনে যাতে ব্যাটারি আর একটু বেশিক্ষণ থাকতে পারে, এমন ওয়ালপেপার লাগান, যাতে অনেকটা অংশ কালো৷ কারণ আপনার স্মার্ট ফোনের ওয়ালপেপারের সেই রঙিন অংশই একমাত্র আলোকিত হবে৷ কিন্তু কালো পিক্সেল আলোকিত করার দরকার পড়ে না৷ ফলে ওয়ালপেপারের বেশিরভাগ অংশ কালো হলে, ব্যাটারি কম পুড়বে৷ স্বাভাবিকভাবেই আপনার ব্যাটারির আয়ুও বাড়বে৷ 
স্মার্ট ফোন থাকবে, কিন্তু তাতে কোনও অ্যাপ থাকবে না, সেটা তো হতে পারে না৷ আর অনেক অ্যাপ আছে, যা আমাদের নানা কাজকে অনেক সহজ করে দেয়৷ তবে ওয়াইফাই চালু থাকাকালীন আপনার প্রয়োজনীয় সমস্ত অ্যাপ ডাউনলোড করুন৷ তাতে ব্যাটারির ওপর অতিরিক্ত চাপ পড়বে না৷ ওয়াইফাই ইন্টারনেট থেকে অ্যাপ আপডেট করার সময় আপনার স্মার্ট ফোন যথেষ্ট পরিমাণে পাওয়ার কনজিউম করতে পারবে৷ তাছাড়া সম্ভব হলে স্মার্টফোনে চার্জ দিয়ে অ্যাপ ডাউনলোড করতে পারেন৷ ফোনে ইন্টারনেট করার সময়, হু-হু করে ব্যাটারি পুড়তে থাকে৷ তাই যখন আপনার ফোনে ইন্টারনেট দরকার হবে না, তখন স্মার্ট ফোনটিকে ফ্লাইট বা এরোপ্লেন মোডে রাখুন৷ এর ফলে সমস্ত ওয়্যারলেস ফিচারগুলো কাজ করা বন্ধ করে দেবে৷ ফলে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট থেকে ঘন ঘন নোটিফিকেশন আসা বন্ধ করে দেবে৷ ফলে ফোনের ব্যাটারিও থাকবে৷ অথবা ফোন ‘ডু নট ডিস্টার্ব’ মোডেও রাখতে পারেন৷ ফোনে আর কোনও নোটিফিকেশন ঢুকতে পারবেনা৷ আরও একটা কথা মাথায় রাখুন৷ সাশ্রয় করতে গিয়ে কখনওই খারাপ মানের ব্যাটারি ব্যবহার করবেন না৷ তাহলে ফোন যেভাবেই ব্যবহার করুন না কেন, ব্যাটারি জলদি খতম হবেই৷ ভালো মানের ব্যাটারি কিনুন৷ এবং যে ব্র্যান্ডের ফোন কিনেছেন, সেই ব্র্যান্ডের আসল ব্যাটারি ব্যবহার করুন৷