ব্রিটেনে ৫জি নেটওয়ার্ক স্থাপনের অনুমতি পেলো হুয়াওয়ে

শিপু আহমেদ (সিলেট প্রতিনিধি) :: দ্য টেলিগ্রাফ জানিয়েছে, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেজা মে চায়নিজ কোম্পানি হুয়াওয়েকে পঞ্চম প্রজন্মের “নন কোর” নেটওয়ার্ক স্থাপনের অনুমতি দিয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন যার ফলে কোম্পানিটি অ্যান্টেনা ও অন্যান্য নেটওয়ার্ক যন্ত্রাংশ স্থাপন করতে পারবে।

ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিল এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে যার প্রধান টেরেজা মে নিজে, এবং রাজনীতিবিদদের বিভিন্ন নিরাপত্তা আশংকার কথায় মাথায় নিয়ে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। ট্রাম্প প্রশাসন চায় তার মিত্ররা যেন চায়নিজ এই কোম্পানিকে বয়কট করে, তাই সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে হুয়াওয়ের পণ্যগুলোর ব্যবহার নিষেধাজ্ঞার মাধ্যমে বন্ধ করে দেওয়া হয়। অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড ইতিমধ্যে তাদের নিজ নিজ দেশে আভ্যন্তরীণ মোবাইল কোম্পানিগুলোকে হুয়াওয়ের পণ্য বর্জনে আদেশ দিয়েছে। নিউজিল্যান্ড সে দেশের একটি কোম্পানিকে হুয়াওয়ের যন্ত্রাংশ ব্যবহার করে ৫জি প্রচারণার জন্য ওই কোম্পানির উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।হুয়াওয়ে শুরু থেকেই তাদের উপর চীন সরকারের যেকোন ধরনের প্রভাব বিস্তার করার কথা অস্বীকার করে আসছে।

অন্যদিকে কয়েক বছর ধরেই চীন, রাশিয়া ও ইরানের উপর বিভিন্ন দেশ থেকে গুপ্তচরবৃত্তির মাধ্যমে জাতীয় ও ব্যবসায়িক বিভিন্ন তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ আছে। যার ফলশ্রুতিতে চীন সরকার প্রায় সবধরনের চুক্তির ক্ষেত্রে তাদের দেশিয় প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে চুক্তিবদ্ধ, যার মধ্যে রয়েছে বিনোদন ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টেনসেন্ট, সার্চ ইঞ্জিন বাইডু, কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকস প্রস্তুতকারী শাওমি, বৃহৎ টেলিকম সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে ও জেডটিই