স্যামসাং আনছে পৃথিবীর প্রথম ফো্র্ডেবল স্মার্ট ফোন

samsung foldable Phone

তনিমা নাসরিন, ঢাকা, মিরপুর প্রতিনিধিঃ আমরা সবাই কখনো না কখনো ফোন অথবা ট্যাবলেট ব্যাবহার করেছি। যদি এমন হয় আমরা একসাথে ফোন ও ট্যাবলেট ব্যবহার করতে পারি তাহলে কেমন হয়।বিষয়টিকে অসম্ভব মনে হচ্ছে তাইনা।কিন্তু এই প্রযুক্তিকেই সম্ভব করে দেখাল সাউথ কোরিয়ান মোবাইল কোম্পানী স্যামসাং।

এখনও পর্যন্ত এই ফোনের কোনও নাম ঠিক হয়নি। তবে অনেকের মতে এই ফোনের নাম হতে চলেছে, স্যামসাং গ্যালাক্সি এফ। ফোনটির উপস্থাপনার সময় স্যামসাং সতর্ক ছিল এটির ডিজাইন ফাঁস হওয়া নিয়ে। সেই জন্য কনফারেন্সের সময় সব আলোনিভিয়ে দেওয়া হয়েছিল আর শুধু ডিসপ্লের উপর আলো ফেলা হয়েছিল। তবে বলা যেতেই পারে যে, এই ফোনের ৭.৩ ইঞ্চি অ্যামোলেড ডিসপ্লেটি সত্যিই অসাধারণ। এই ৭.৩ ইঞ্চি অ্যামোলেড প্যনেলটি ভাঁজ করা যায় এবং একটি স্মার্টফোনে বদলে দেওয়া যায়। এ ছাড়াও বাইরের দিকে ৪.৬ ইঞ্চির একটি অ্যামোলেড ডিসপ্লে আছে, যেটিকে আপনারা ফোন হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। একটি ইনফিনিটি ফ্লেক্স ডিসপ্লে আছে এই ফোনটিতে, যার সাহায্যে আপনারা খুব সহজেই ফোনটিকে ভাঁজ করতে পারবেন। বলা যেতেই পারে যে, এটিই একমাত্র ফোন, যেটাকে আপনারা একই সঙ্গে ট্যাবলে‌ট এবং স্মার্টফোন হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন। ডিভাইসটির ইউ আই-কে স্মার্টফোন ও ট্যাবলে‌ট দুটোতেই ব্যবহার করার জন্য স্যামসাং একটি আলাদা ওয়ান ইউ আই তৈরি করেছে।

এই নতুন ইন্টারফেসটি তৈরি করতে গুগল এবং অ্যান্ড্রয়েড ডেভে‌লপারদের সঙ্গে মিলে স্যামসাং তৈরি করেছে এই নতুন ওয়ান ইউ আই।ওয়ান ইউ আই এ কীছু চমকপ্রদ ফিচার রয়েছে। এই ইউ ই টিতে একসাথে তিনটি মাল্টি টাস্কিং করা যাবে।আর যদি কোন আ্যাপ কে বাইরের ডিস্প্লেতে খোলা হয় তাহলে আমরা ভিতরের ডিস্পেলেতেও আমরা একই আ্যাপ পাব। এই নতুন ইউ আই-এর ফলে স্মার্টফোনটি আপনি খুব সহজভাবেই ব্যবহার করতে পারেন।আপনার সব অ্যাপ আপনার ফোনের নীচে চলে আসে এবং আপনি যখন নিজের ফোনটা বড় করে নেন, তখন আপনার ইউ আই ট্যাবলে‌টের বড় স্ক্রিনের সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নেয়। এই ডিভাইসটির কোনও গ্লাস প্রোটেকশন নেই। যেটা আছে সেটাকে বলে পলিমার। যেটা কিনা খুব বেশি দিন চলে এবং খুবই ফ্লেক্সিবল। তবে এই ডিভাইসটি খুব বেশি পরিমাণে তৈরি করা একটি বড় চ্যালেঞ্জ হতে চলেছে। কারণ এর আগে ইনফিনিটি ফ্লেক্স ডিসপ্লে কেউ তৈরি করেনি। তাই খুব বেশি পরিমাণে তৈরি করার অভিজ্ঞতা বিশেষ কারও নেই।

২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারীতে ফোনটি বাজারে আসতে পারে। আর ফোনটির দাম হতে পারে ১৩৭০ মার্কিন ডলার। আরও কিছু স্মার্টফোন প্রসতুতকরী প্রতিষ্ঠান যেমন হুয়াওয়ে, এল জি এই বিষয়ে কাজ করছে।

সূত্রঃ সিউল ভিত্তিক ইউনহাপ নিউস এজেন্সী