অরুণাচল ভারতের রহস্যপুরী

Arunacal

টেক ট্রাভেল ডেস্কঃ ভারতের অরুণাচল হল রহস্যপুরীই দেশ বিদেশী সবার জন্য। আমারা আজ আপনাকে পথ দেখিয়ে দিব কিভাবে  কিছু নিয়ম মেনে ঘুরে আসা যায় অরুণাচল থেকে।

অরুণ অর্থ সূর্য, আর অচল অর্থ পাহাড়। একদম বাংলা শব্দ তাইনা? অরুণাচল বলতেও তাই বোঝায় সূর্যালোকিত পাহাড়। যেরকম অসম্ভব সুন্দর এই রাজ্যের নাম, সেরকমই আশ্চর্য সুন্দর এই রাজ্যটি। অরুণাচলে মাসের পর মাস কাটিয়ে দিতে পারেন আপনি, তাও হয়ত শেষ হবেনা এর অনাস্বাদিত সৌন্দর্য্যে অবগাহনের। কিন্তু সময় কম থাকলে বিশেষ কিছু জায়গা ঘুরেও আদায় করে নিতে পারেন অরুনাচলের রূপের নির্যাস।

১। তাওয়াংঃ

ইতিহাস আর প্রকৃতি মিলেমিশে গেছে এখানে। এখানে রয়েছে ভারতের বৃহত্তম আর বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মনাস্ট্রি- তাওয়াং মনাস্ট্রি। ইন্দো-চীন বর্ডার ও দেখতে পাবেন এখান থেকেই এখানকার বিশেষ আকর্ষণ গুলো হল- তাওয়াং মনাস্ট্রি, বুমলা পাস, সেলা পাস, তাকসাং গোয়েম্পা, সোংগা সার লেক।

২। রোয়িংঃ

নিখুঁত প্রকৃতির মধ্যে যদি ডূবে যেতে চান, তবে রোয়িং আপনার গন্তব্য! সারাবিশ্বের পর্যটক, আর্কিওলজিস্ট, প্রকৃতিপ্রেমী আর এডভেঞ্চারপ্রেমী দের কাছে এই স্থান সমাদৃত এর অসাধারণ প্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্যের কারণে।

এখানকার শান্ত লেক আর অনন্য জলপ্রপাতগুলো আপনাকে ধ্যানের সমান শান্তি আর মানসিক স্থিরতা এনে দেবে। এখানে দেখবেন মাহাও ওয়াইল্ড লাইফ স্যাংচুয়ারি, স্যালী লেক, মায়ুডিয়া, ভিস্মকনগর ফোর্ট, নিঝুমগড়।

৩। ভালুকপংঃ

এডভেঞ্চার ও আয়েশের পারফেক্ট সমন্বয় এখানে। পিকনিক করতে যেতে পারেন এজায়গায়, অথবা যেতে পারেন ভালুকপং এর চারপাশ ঘিরে থাকা পাহাড়ে হাইকিং বা ট্রেকিং এ, নদী তীরে কাটাতে পারেন রোমান্টিক সন্ধ্যা, অথবা যেতে পারেন উত্তেজক রাফটিং এ! মহাভারতের বেশ কিছু মিথ এর সাথেও সংযুক্তি আছে এ জায়গার!

এখানকার উল্লেখযোগ্য দর্শণীয় স্থান- ভালুকপং ফোর্ট, কাজিরাঙ্গা ন্যাশনাল পার্ক, পাখুই ওয়াইল্ড লাইফ স্যাংচুয়ারি, টিপি, বমডিলা ইত্যাদি।

৪। বমডিলাঃ

প্রায় ৮০০০ ফুট উচ্চতায় অবস্থিত এই স্থান থেকে দেখতে পাবেন হিমালয়ের নানান তুষার ধবল চূড়া, বিশেষ করে কাংতো ও গোরিচেন পিক। দৃষ্টিনন্দন প্রকৃতি আর দারুণ আবহাওয়ার জন্য এই জায়গা বিখ্যাত। ঘুরে দেখতে পারেন এখানকার হস্ত শিল্প পল্লীও।

এখানকার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান- বমডিলা ভিউপয়েন্ট, বমডিলা মনাস্ট্রি, ঈগলনেস্ট ওয়াইল্ড লাইফ স্যংকচুয়ারি, , ক্রাফট সেন্টার ও এথনোগ্রাফিক মিউজিয়াম।

৫। জিরোঃ

যদি আপনি ট্রেকিং ভালোবাসেন, এই জায়গা আপনার জন্য অবশ্য গন্তব্য! আপাতানি প্ল্যাত্যু নামেও পরিচিত এই ছোট্ট আদিবাসী গ্রাম স্থান করে নিয়েছে ইউনেস্কো ঘোষিত বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায়। এখানে দেখতে পারেন জিরো পুতো, ট্যালি ভ্যালি ওয়াইল্ড লাইফ স্যংকচুয়ারী, তারিন ফিশ ফার্ম, ডিলোপোল্যাং মানিপোলয়াং, মেঘনা কেভ টেম্পল ইত্যাদি স্থান।