অন-লাইনে মোবাইল ফোন ক্রয় করে প্রতারিত হচ্ছে

মাহবুবুর রহমান, (কুমিল্লা জেলা) প্রতিনিধি: ফেজবুকে বিজ্ঞাপন দেখে মোবাইল ফোনের অর্ডার করে পণ্য হাতে পেয়েও প্রতারনার শিকার হয় ক্রেতা। বর্তমানে আমরা অনেকে ফেজবুক ব্যবহার করে থাকি। বিভিন্ন সময় ফেজবুকে বিজ্ঞাপন দেখতে পাওয়া যায়, মোবাইল ফোন সহ বিভিন্ন প্রকার ইলেক্ট্রনিক্স সামগ্রীর। তা দেখেই অনেকে পণ্য কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। বিজ্ঞাপন গুলোতে লিখা থাকে বিশেষ অফার বা বিশেষ মূল্য ছাড় বা বিশাল ডিসকাউন্ট ইত্যাদি।

এখন ‍SAMSANG J2 ‍মাত্র ৩৫০০ টাকা , SAMSANG J7 prime মাত্র ৪১০০ টাকা ,IPHONE-6 মাত্র ৫২০০ টাকা, ZTE m8 মাত্র ৩৮৫০ টাকা,অর্ডার করতে স্ক্রিনের নম্বর গুলোতে ফোন দিন। আরো উল্লেখ থাকে উক্ত মডেল গুলোর ছবি সহ বিস্তারিত তথ্য। আর ক্রয় করার জন্য ফোনে অর্ডার করার জন্য থাকে কিছু মোবাইল নম্বর।

অনেকে দাম কম দেখে এবং কনফিগারেশনের দিকে লক্ষ করে পন্যের অর্ডার দেয় ও পণ্য ক্রয় করে। কিন্ত ব্যবহার শুরু করলে কাক্ষিত কাজ করা সম্ভাব হয় না উক্ত মোবাইল ফোন দিয়ে। অনেক ক্ষত্রে কাংক্ষিত মোবাইলের মডেল ও মিল থাকেনা। তেমনি দুজন ক্রেতার সাথে কাথা হয়েছে। বলেছে তারা ফেজবুকে বিজ্ঞাপন দেখে কি ভাবে প্রতারিত হল-

প্রথম জন ফখরুল ইসলাম: ফেজবুকে বিজ্ঞাপন দেখে অর্ডার করলেন ‍SAMSANG j7 Prime এবং বিকাশে ১০০/- টাকা আগাম দেওয়া হলো, ২৪ ঘন্টার মধ্যে পণ্য হাতে আসলো এবং মূল্য পরিশোধ করা হলো। ব্যবহার শুরু করলেন শখ করে কেনা‍ SAMSANG j7 Prime. কিছুক্ষন পর থেকেই সমস্যা শুরু। ক্যামেরা দিয়ে ছবি ভাল আসেনা, 8MP ক্যামেরা 1.5MP ছবি উঠে। সেটে অল্প কয়েকটি ছবি উঠে এর পর stroge full দেখায়, 16GB মেমোরি কথা হয়েছে 26MB Stroge কাজ করে। 4G নেটওয়ার্ক সাপোর্টেড সেট 2G কাজ হয়।

এমন সমস্যা দেখে ফখরুল ইসলাম আবার বিজ্ঞাপনা দাতার নিকট কল দিলে মোবাইল সম্পর্কে বিস্তারিত জানালে তাকে বলা হয় আপনার সাথে পরে যোগাযোগ করা হবে। এরপর আর কোন যোগাযোগ করা হয়নি। দুদিন পর আবার কল দেওয়া হয় বিজ্ঞাপন দাতার নম্বরে আর কোন প্রতি উত্তর পাওয়া যায়নি। এর কয়েক ঘন্টা পর থেকে আর ঐ নম্বরে আর রিং দেওয়া সম্ভব হলোনা।

দ্বিতীয় জন মু. রহমান: তিনি ফেজবুকে বিজ্ঞাপন দেখে SAMSANG j2 অর্ডার করেন এবং পর দিন সকাল ১০টার পর সেট হাতে আসলো। যথা রিতি সিম কার্ড মেমোরি কার্ড লাগিয়ে ব্যবহার শুরু তো সমস্যা শুরু। নেটওয়ার্ক আসেনা, মোবাইল সেট আনেক ধীর যা আমার ব্যবহার করা সম্ভাব নয়। বিজ্ঞাপন দাতার সাথে যোগাযোগ করা হলে, তিনি বললেন সেট টি পাঠিয়ে দেওয়ার জন্য। যথারিতি সেট পাঠিয়ে দেওয়া হলো, ৩দিন পর ফেরত কল আসলো, আপনার এই মডেল টি আমাদের স্টকে নেই অন্য একটি মডেল আছে এটার থেকে ভালো হবে, তবে দাম বাড়বে আর ১৫০০ টাকা দিতে হবে। মনে করলাম যদি ভালো হয় তাহলে ১৫০০টাকা দিয়ে ভাল একটি ফোন সেট পাওয়া যাবে। বললাম ভাল করে দেখে দিবেন, তারাও বলল পরীক্ষা করেই দেওয়া হবে।

১দিন পর কল আসে আপনার মোবাইল সেট টি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে ১৫০০ টাকা দিয়ে সেটটা নিয়ে যাবেন, এবার আশা করি সমস্যা হবেনা। পর দিন মোবাইল হাতে আসলে সিম মেমরি কার্ড লাগিয়ে পাওয়ার অন করার জন্য পাওয়ার সুইজে চাপ দিয়ে ধরলাম অনেক ক্ষন পর পাওয়ার অন হল মোবাইল খোলা হল, কিন্তু মোবাইল আর কোন কাজ করছেনা।

বিজ্ঞাপন দাতাকে ফোন করা হলো বলে আপনার মোবাইলের সাথে ক্যাশ মেমো দেওয়া হয়েছে সে নম্বরে ফোন দিন। ক্যাশ মেমোতে একাদিক নম্বর, এক এক করে সকল নম্বরে ফোন করা হলো সব কয়টি নম্বর বন্ধ পাওয়া গেছে। আবার বিজ্ঞাপন দাতাকে ফোন করা হলে আর কোন সাড়া পাওয়া যায়নি।আর এই ভাবে প্রতারনার শিকার হচ্ছে লোকজন।