বগুড়া জেলার ঐতিহ্য সান্তাহার সাইলো

গোলাম রাব্বী আকন্দ (বগুড়া প্রতিনিধি) : আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহারে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন বহুতল খাদ্য গুদাম। সান্তাহার জংশন শহর থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দক্ষিণে পৌর এলাকার আমঝুপিতে ১৯৬৯-৭০ সালে প্রায় ১৬ একর জমি অধিগ্রহন করে বীণ পদ্ধতিতে (খোলা অবস্থায়) উন্নতমানের গম সংরক্ষন করার জন্য সান্তাহার খাদ্য শস্য সাইলো নামে সু-উচ্চ (প্রায় ১৮ তলা) স্থাপনা নির্মাণ করা হয়। এর ধারণ ক্ষমতা ২৫ হাজার ১৫০ মেট্টিক টন। ওই সাইলো (গম সংরক্ষনাগার) ক্যাম্পাসেই

দেশের প্রথম আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন শীতাতাপ নিয়ন্ত্রীত বহুতল খাদ্যগুদাম নির্মিত হয়েছে। যা উচ্চতায় অন্যান্য সাত তলা ভবনের সমান।দাতা সংস্থা জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির (জাইকা) আর্থিক সহায়তায় নির্মিত খাদ্য গুদামটি পুরোপুরি সৌর বিদ্যুৎ দ্বারা পরিচালিত হবে। এজন্য গুদামের ছাদ জুড়ে শতাধিক সোলার প্যানেল স্থাপন করা হয়েছে। যা থেকে মোট ৩৬০ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ পাওয়া যাচ্ছে। বাংলাদেশে মাত্র ৪ টি সাইলোর মধ্যে সান্তাহারে অবস্থিত একটি।

কিভাবে যাওয়া যায়: বগুড়া রেল স্টেশন হতে ট্রেনযোগে সান্তাহার জংশনে পৌছে ৩ কি:মি: রাস্তা রিক্সা অথবা টেম্পুযোগে যাওয়া যায়।

বিঃদ্রঃ কোথাও ঘুরতে গিয়ে যেখানে সেখানে ময়লা,আর্বজনা, চিপসের প্যাকেট ইত্যাদি না ফেলে নির্ধারিত জায়গায় ফেলেন। জীবনে যা পেয়েছেন তারচেয়ে ভাল কিছু রেখে যান।