বিলাইছড়িতে এসডিজি বাস্তবায়ন শীর্ষক কর্মশালার আয়োজন

sds002

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধিঃ “স্থানীয় পর্যায়ে টেকসই উন্নয়ন অভিষ্ট (এসডিজি) বাস্তবায়ন” বিষয়ক দিনব্যাপী এক কর্মশালা মঙ্গলবার (২৮ মে) বিলাইছড়ি উপজেলায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিট (জিআইইউ) এর সহযোগিতায় বিলাইছড়ি উপজেলা শিল্পকলা একাডেমীতে উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত কর্মশালায় বিশেষ আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিলাইছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীরোত্তম তঞ্চঙ্গ্যা। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (অ:দা:) আশরাফ আহমেদ রাসেল এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যানদ্বয় রবিন তঞ্চঙ্গ্যা ও উৎপলা চাকমা, বিলাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পারভেজ আলী এবং কাপ্তাই উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাদির আহম্মদ। কর্মশালায় উপজেলার সরকারি ও বে-সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারী, জনপ্রতিনিধি, ঐতিহ্যবাহী প্রতিনিধি, ধর্মীয় নের্তবৃন্দ, রাজনৈতিক নের্তবৃন্দ এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধি বৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

আশরাফ আহমেদ রাসেল ২০৩০ সালের মধ্যে এসডিজি বাস্তবায়নের জন্য ১৭টি অভিষ্টের আওতায় ১৬৯টি লক্ষ্যমাত্রা এবং ২৩২টি সূচক নিয়ে বিস্তারিত আলোচনায় বলেন, ইতিমধ্যে আমরা এমডিজি বাস্তবায়নে অগ্রণী ভ’মিকা পালনে সক্ষম হয়েছি। তাই এসডিজি বাস্তবায়নেও শক্তিশালী জবাবদিহিতামূলক স্থানীয় সরকার ব্যবস্থার প্রয়োজন। এবং এর মাধ্যমে জনগণকে ক্ষমতার কাছাকাছি নিয়ে আসতে পারলে উক্ত লক্ষ্যগুলো বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে। তবে সূচকগুলো সকল দেশের জন্য সমভাবে প্রযোজ্য নয়। তাই পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ তাদের নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা, রাস্ট্রের অগ্রাধীকার এবং চাহিদার আলোকে এসডিজির সূচকের অগ্রাধীকার তালিকা প্রণয়ন করেছে। এবং আমাদের জেলা ও উপজেলা ভেদেও সূচকগুলো আলাদা হতে পারে বিধায় গ্রুপ ওয়ার্কের মাধ্যমে এগূলো তুলে আনা হচ্ছে।

এছাড়াও উপজেলার সকলের জন্য সব ধরনের দারিদ্র্যতার অবসান নিশ্চিত করা, কৃষিক্ষেত্রে সব ধরনের সহযোগিতা নিশ্চিত করা, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, সকলের জন্য শিক্ষা ও সু-স্বাস্থ্য নিশ্চিত করা, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য বনায়ন সৃষ্টি করা, সকলের জন্য পানি ও স্যানিটেশন নিশ্চিত করা, শিশু জন্মের ৪৫ দিনের মধ্যে জন্মনিবন্ধন নিশ্চিত করা এবং বাল্যবিবাহ ও ইভটিজিং প্রতিরোধ করার বিষয়গুলো নিয়ে বিশেষভাবে গ্রুপ ভিত্তিক উপস্থাপনায় তুলে আনা হয়।