ভালোর ছদ্মবেশী ক্ষতিকারক অ্যানন্ড্রয়েড এ্যাপস

মো.সাইফুল ইসলাম#ভোলা : সাধারণত প্লেস্টোর বা অ্যাপ স্টোরে নানা ধরনের অ্যাপ উন্মুক্ত থাকে ব্যবহারকারীদের জন্য। বেশির ভাগ অ্যাপ বিনামূল্যে থাকায় অনেক ব্যবহারকারী বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ ব্যবহার করেন মোবাইল ফোনে। তবে সব ধরনের অ্যাপ কিন্তু উপকারী নয়। গুগলপ্লে-স্টোরে লুকিয়ে আছে এমন কিছু ক্ষতিকারক অ্যাপ। গুগলের নানা প্রচেষ্টা সত্ত্বেও এসব অ্যাপ বিভিন্নভাবে গুগল প্লে স্টোরে জায়গাকরে নেয়।

সম্প্রতি একটি নিরাপত্তা সংস্থা জানায়, অফিসিয়াল গুগল প্লে স্টোরে বেশ কয়েকটি ক্ষতিকারক অ্যাপ্লিকেশন তালিকাভুক্ত আছে। এরমধ্যে বেশ কয়েকটি অ্যাপ মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ভাইরাস হিসেবে লুকিয়ে আছে। এসব অ্যাপ মোবাইলের পাশাপাশি তথ্য বেদখল হওয়ার ক্ষেত্রে সক্রিয় থাকে।অ্যান্টিভাইরাস তৈরি প্রতিষ্ঠান সিমেন্টেক ও চেক পয়েন্টের মতো নিরাপত্তা সংস্থার গবেষকরা গুগল প্লে-স্টোরে লুকানো ম্যালওয়্যার সম্পর্কে সতর্ক করে দিয়েছেন ব্যবহারকারীদের।

তাদের মতে, এ ধরনের অ্যাপ্লিকেশনগুলো সাধারণত ডিভাইস বুস্টার, ক্লিনার্স, ব্যাটারি ম্যানেজারস এমনকি হরোস্কোপ-থিমযুক্ত অ্যাপ্লিকেশনের মধ্যে লুকিয়ে থাকে। এছাড়া গেম, এডুকেশন বা ক্রিপ্টোকারেন্সি অ্যাপ্লিকেশনের মধ্যেও এসব ক্ষতিকারক অ্যাপ থাকতে পারে।অ্যাপ্লিকেশনগুলোর মধ্যে কয়েকটি অ্যাপ্লিকেশন গ্রাহককে বাধ্য করে তাদের অ্যাপ ইনস্টলের জন্য। কোনও ব্যবহারকারী প্লে-স্টোরে ঢোকামাত্রই কাজটি করে তারা।

আবার কিছু অ্যাপ আছে যা দেখতে উপকারী মনে হলেও স্মার্টফোনকে ক্ষতি করছে। এরকমকিছু অ্যাপ সম্পর্কে জেনে নিন এবং এখনই আপনার স্মার্টফোন থেকে ডিলিট করুন ‘মাস্টার ক্লিনার ,স্মার্টফোনের গতি ঠিক রাখতে মাস্টার ক্লিনার ব্যবহার করেন অনেকে। এটা ব্যবহারকারীদের মধ্যে বেশ জনপ্রিয়তাও পেয়েছে। তবে অ্যাপটি স্মার্টফোনের জন্য অনেক ক্ষতির কারণ হতে পারে। এটি স্মার্টফোনে না রাখাই ভালো।

‘কালারিং বুকস ফর কিডস,স্মার্টফোনের কল্যাণে আজকাল শিশুরা ফোনেই রঙ করা শিখতে পারছে। কিন্তু এসব অ্যাপ ইনস্টল করলে স্মার্টফোনের ব্যাটারির অনেক ক্ষত হয়। ‘পারসোনাল হরোস্কোপ,প্রতিদিন হরোস্কোপ দেখার জন্য অনেকে অ্যাপটি ব্যবহার করেন। কিন্তু এটি স্মার্টফোনের গতি অনেকটাই কমিয়ে দেয়।‘কলিং ফ্রি কলস অ্যান্ড ম্যাসেজেস টুএনি কান্ট্রি,ইন্টারনেট ব্যবহার করে বিভিন্ন দেশে ফোন দেওয়ার জন্য প্লে-স্টোরে আছে নানা ধরনের অ্যাপস।এগুলো স্মার্টফোনের গতি কমিয়ে দেয়।অ্যাপ-লক প্রাইভেসি প্রটেক্টর: ফোনের প্রাইভেসি বাড়ানোর জন্য অনেকের মধ্যেই এসব অ্যাপ ব্যবহার করার প্রবণতা দেখা যায়। কিন্তু এগুলো হতে পারে স্মার্টফোনের র্যামের জন্য অনেক সময় ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়।