লোক ও কারুশিল্প জাদুঘর – সোনারগাঁও

Sonarga-Jadugho

মাহামুদুল হাসান (মিরপুর প্রতিবেদক) : লোক ও কারুশিল্প জাদুঘর ঢাকার অদূরে নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ উপজেলায় অবস্থিত। গ্রাম বাংলার লোক সাংস্কৃতিক ধারাকে বিকশিত করার উদ্যোগে ১৯৭৫ সালের ১২ মার্চ শিল্পচার্য জয়নুল আবেদীন ঐতিহাসিক পানাম নগরীর একটি প্রাচীন বাড়িতে প্রতিষ্ঠা করেন বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প জাদুঘর।

পরবর্তিতে ১৯৮১ সালে ১৫০ বিঘা আয়তনের কমপেক্সে খোলা আকাশের নিচে বাংলার প্রকৃতি ও পরিবেশ ফুটিয়েতুলার লক্ষে গ্রামীন বাংলাদেশের সাধারন মানুষের শৈল্পিক কর্মকান্ডের পরিচয় তুলে ধরতে শিল্পী জয়নুল আবেদীন এই জাদুঘর উন্মুক্ত পরিবেশে গড়ে তোলার প্রয়াস নেন। বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন কমপেক্সটি প্রায় ১০০ বছর পুরাতন সর্দার বাড়িতে স্থানন্তরিত হয়। এখানে এর সাথে রয়েছে সমৃদ্ব গ্রন্থাগার, কারুপল্লী ও একটি বিশাল লেক। সোনারগাঁয়ে বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন এলাকায় রয়েছে লোক ও কারুশিল্প জাদুঘরটি।

এখানে স্থান পেয়েছে অবহেলিত গ্রাম-বাংলার নিরক্ষর শিল্পীদের হস্তশিল্প, জনজীবনের নিত্য ব্যবহার্য পন্যসামগ্রী। এসব শিল্প সামগ্রীর মাধ্যমে প্রাচীন বাংলার ঐতিহ্যবাহী লোকশিল্পের রুপচিএ ফুটে উঠেছে। এখানে ১০টি শিল্প গ্যালারী রয়েছে গ্যালারিগুলোতে কাঠ খোদাই, কারুশিল্প, পটচিএ ও মুখোশ, আদিবাসী জীবনবিত্তিক নিদর্শন, তামা-কাষা-পিতল নিদর্শন, লোহার তৈরি নিদর্শন, লোকজ অলংকারসহ রয়েছে আরো অনেক কিছু। প্রতি বৈশাখ মাসে এখানে সাড়ম্বরে আয়োজিত হয় লোকশিল্প মেলা। এ মেলায় লোকসংগীত, যাএাপালা, কবিগানসহ অনেক ঐতিহ্যবাহী অনুষ্ঠানমালা পরিবেশন করা হয়। এছাড়াও জাদুঘরের সন্মুখে অবস্থিত লেকে নৌকাভ্রমন ও শীত মৌসুমে টিকেট কেটে মাছ ধরার ব্যবস্থা আছে। দর্শণার্থীদের খাওয়া-দাওয়ার জন্য ক্যান্টিন ব্যবস্থা রয়েছে।

ভ্রমন টিপস্ : কোথাও ঘুরতেগিয়ে পরিবেশের ক্ষতি সাধন হয় এমন কাজ থেকে বিরত থাকবেন এবং ময়লা আবর্জনা নির্দিষ্ট স্থানে ফালাবেন।